ব্যবস্থাপনার স্তর ও মূলনীতি কি কি..? 

ব্যবস্থাপনার স্তর ( Levels of Management ):


ব্যবস্থাপনার স্তর ও মূলনীতি কি কি
ব্যবস্থাপনার স্তর ও মূলনীতি কি কি 

ব্যবস্থাপনা হচ্ছে একটি সুসংবদ্ধ ও ধারাবাহিক কার্যপ্রণালি । ব্যবস্থাপনা কার্যাবলি বা প্রক্রিয়া বাস্তবায়নকারীদের বিভিন্ন পর্যায় হলো ব্যবস্থাপনার স্তর । এসব স্তরের ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনার কাঠামো ত্রিভূজ বা পিরামিড আকৃতির হয়ে থাকে 


স্টিভেন জে . স্কিনার ( Steven J. Skinner ) এবং জন এম . ইভানহেভিচ ( John M. Ivancevich ) বলেনঃ


Levels of management means the managerial Chierarchy in an organization typically three distinct levels , executive , middle and first line usually portrays as pyramid . ' অর্থাৎ , ' কোনো প্রতিষ্ঠানে কর্তৃত্বের ভিত্তিতে ব্যবস্থাপকীয় বিন্যাসকে ব্যবস্থাপনা স্তর বলা হয় । ব্যবস্থাপনা স্তর তিনটি । যথা : নির্বাহী বা উচ্চ স্তর , মধ্য স্তর এবং নিম্ন স্তর বা প্রথম সারি । এটি পিরামিডের মতো দেখায় 


সাধারণত ব্যবস্থাপনার স্তর বা পর্যায়কে তিন ভাগে ভাগ করা হয় । নিচে ব্যবস্থাপনার বিভিন্ন স্তর বা পর্যায়গুলো বর্ণনা করা হলো


১. উচ্চ স্তরের ব্যবস্থাপনা ( Top level management ) : প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগ গ্রহণ , লক্ষ্য ও কৌশল নির্ধারণ , পূর্বানুমান , অর্থসংস্থান , দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা প্রণয়ন ও নীতি নির্ধারণের জন্য সর্বোচ্চ স্তরের নির্বাহীদের নিয়ে গঠিত স্তরকে উচ্চ স্তরের ব্যবস্থাপনা বলে । এ স্তরকে প্রশাসনিক ( Administrative ) স্তরও বলা হয় । প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান , পরিচালনা পর্ষদ , কোম্পানির সচিব , ব্যবস্থাপনা পরিচালক , মহাব্যবস্থাপক প্রমুখ ব্যক্তিরা এ স্তরের অন্তর্গত । এ পর্যায়ের সাথে সম্পৃক্ত ব্যবস্থাপক বা নির্বাহীরা প্রতিষ্ঠানের জন্য উদ্দেশ্য ও নীতিনির্ধারণ , দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা প্রণয়ণ ও কৌশল নিয়ে থাকেন । উচ্চ স্তরের নির্বাহী বা ব্যবস্থাপকরা সাধারণত মানসিক ও বুদ্ধিবৃত্তিক কাজ বেশি মাত্রায় করে থাকেন


২. মধ্য স্তরের ব্যবস্থাপনা ( Mid level management ) : যে স্তরে উচ্চ পর্যায়ের ব্যবস্থাপনা কর্তৃক প্রণীত নীতি ও পরিকল্পনা সমন্বয় এবং বাস্তবায়নের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হয় , তাকে মধ্য স্তরের ব্যবস্থাপনা বলে । নিম্ন পর্যায়ের ব্যবস্থাপকরা যাতে গৃহীত পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পারেন , সেই বিষয়ে এ স্তর থেকে তদারকি করা হয় । তাই এ স্তরকে নির্বাহী ( Executory ) স্তর বলা হয় । প্রতিষ্ঠানের উপ - মহাব্যবস্থাপক , সহকারী মহাব্যবস্থাপক , আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক প্রভৃতি ব্যক্তি এ স্তরের অন্তর্ভুক্ত । এ স্তরের ব্যবস্থাপক উচ্চ পর্যায়ের ব্যবস্থাপকদের কাছ থেকে সামগ্রিক কৌশল , লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সম্পর্কে অবগত হন এবং তা নির্দিষ্ট কর্মসূচিতে পরিণত করেন । উচ্চ স্তরের ব্যবস্থাপকের কাছে এরা জবাবদিহি করেন । প্রতিষ্ঠানের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য এরা নিম্নস্তরের ব্যবস্থাপকদের নির্দেশনা দেন । এরা মূলত উচ্চ স্তর ও নিম্ন স্তরের ব্যবস্থাপনার মধ্যে সেতুবন্ধ তৈরি করে থাকেন । এজন্য এ স্তরের ব্যবস্থাপকদের যোগাযোগ ও অনুপ্রেরণামূলক দক্ষতা বেশি প্রয়োজন । এদের সরবরাহকৃত তথ্যের আলোকে উচ্চ স্তরের ব্যবস্থাপনা গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে পারেন 

আরো পড়ুন 

৩. নিম্ন স্তর বা প্রথম সারির ব্যবস্থাপনা ver level or first line management ) : মধ্য পর্যায়ের ব্যবস্থাপনা কর্তৃক প্রদত্ত পরিকল্পনা ও কর্মসূচি বাস্তবায়নের সাথে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত কর্মীদের সমন্বয়ে গঠিত স্তরকে নিম্ন স্তরের বা প্রথম সারির ব্যবস্থাপনা বলে । এরা কার্যক্ষেত্রে নিয়োজিত কর্মীদের সরাসরি তদারকির দায়িত্বে নিয়োজিত থাকেন । তাই এ স্তরকে তত্ত্বাবধানকারী ( Supervisory ) স্তরও বলা হয় । প্রতিষ্ঠানের কর্মনায়ক , তত্ত্বাবধায়ক , ফোরম্যান , অফিস সুপার , শাখা ব্যবস্থাপক প্রভৃতি এ স্তরের ব্যবস্থাপনার অন্তর্গত । এ পর্যায়ের উপরে থাকেন মধ্য পর্যায়ের ব্যবস্থাপকরা ও নিচের দিকে থাকেন ব্যবস্থাপনার সাথে সংশ্লিষ্ট নন এমন কর্মী বা শ্রমিকরা । এ স্তরের ব্যবস্থাপকরা প্রত্যক্ষভাবে কর্মীদের সাথে সম্পর্কিত থাকেন । পরিকল্পনা বাস্তবায়নে কর্মীদের কাজ তদারকি করাই নিম্ন স্তরের ব্যবস্থাপনার কাজ । এজন্য এদের আন্তঃব্যক্তিক ও কারিগরি দক্ষতা বেশি প্রয়োজন



নিচে ব্যবস্থাপনার বিভিন্ন স্তরের সাথে জড়িত ব্যক্তি ও তাদের কাজ দেখানো হলো—




উচ্চ স্তরের ব্যবস্থা


জড়িত ব্যাক্তিব

১। পরিচালনা পর্ষ

২। প্রেসিডেন্ট

৩। চেয়ারম্যান বা সভাপতি ৪।ব্যবস্থাপনা পরিচালক

৫।প্রধান নির্বাহী অফিসার (সিইও )

৬। সেক্রেটারি বা সচিব ৭।মহাব্যবস্থাপক বা   মহাপরিচালক


কার্যব

প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগ গ্রহণ লক্ষ্য প্রতিষ্ঠা , কৌশল ও নীতিনির্ধারণ , দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা প্রণয়ন এবং পর্যবেক্ষণ ।


মধ্য স্তরের ব্যবস্থাপ

জড়িত ব্যাক্তিবর্গ

১। উপ - মহাব্যবস্থাপক ২।সহকারী মহাব্যবস্থাপক আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক কারখানা ব্যবস্থাপক ৩।বিভাগীয় ব্যবস্থাপক উৎপাদন ব্যবস্থাপ

৪। ক্রয় ব্যবস্থাপক

৫। বিক্রয় ব্যবস্থাপ

৬। মানবসম্পদ ব্যবস্থাপক প্রভৃতি

আরো পড়ুন 

কার্যবলিঃ

উচ্চ স্তরের ব্যবস্থাপনা কর্তৃক গৃহীত পরিকল্প

ও কর্মসূচি বাস্তবায়নের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া।


নিম্ন স্তরের ব্যবস্থাপনা বা প্রাথমিক সারির ব্যবস্থাপ


জড়িত ব্যাক্তিবর্গ

১। শাখা ব্যবস্থাপ

২। সহকারী ব্যবস্থাপক ৩।কারখানা সুপারভাইজার ৪।তত্ত্বাবধায়ক

৫। ফোরম্যান / কর্মনায়ক / সর্দার

৬।অফিস সুপা


কার্যবলিঃ

মধ্য স্তরের ব্যবস্থাপনা কর্তৃক প্রণীত কর্মসূচি বাস্তবায়ন ও কর্মীদে

কাজ তদারিকর


সুতরাং বলা যায় , ব্যবস্থাপনার উচ্চ স্তর প্রতিষ্ঠানের দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা প্রণয়ন করে ; মধ্য স্তর সংযোগ স্থাপন করে এবং নিম্ন স্তর কাজ বাস্তবায়ন করে । মূলত , প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের কাজের ধরন বা দায়িত্বের ওপর ভিত্তি করে ব্যবস্থাপনার স্তর নির্ধারিত হয় । উদাহরণস্বরূপ- একজন সহকারী ব্যবস্থাপক বৃহদায়তন কোনো প্রতিষ্ঠানে নিম্নস্তরের ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করতে পারেন । আবার ছোট প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে একজন সহকারী ব্যবস্থাপক মধ্য স্তরের ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে নিয়োজিত হতে পারেন।

Related Keyword 

ব্যবস্থাপনার মূলনীতিগুলো কি কি..? 

ব্যবস্থাপনার কাজ কয়টি ও কি কি..?

ব্যবস্থাপনার কাজ কি কি..? 

ব্যবস্থাপনার নীতি।

ব্যবস্থাপনার চক্র।

মধ্যে পর্যায়ের ব্যবস্থাপনা কাকে বলে..?

ব্যবস্থাপনার উদেশ্য। 

ব্যবস্থাপনার বৈশিষ্ট্য কি কি..? 

ব্যবস্থাপনার স্তর ও মূলনীতি কি কি..? 


ধন্যবাদ আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করার জন্য 



Previous Post Next Post