সহজে পাসপোর্ট রিনিউ করুন নতুন নিয়মে ২০২৩


সহজে পাসপোর্ট রিনিউ করুন নতুন নিয়মে ২০২৩
সহজে পাসপোর্ট রিনিউ করুন নতুন নিয়মে ২০২৩


পাসপোর্ট হলো একটি দেশের একধরনের নাগরিকত্ব
এর পরিচয় বহন করে। এটি মাধ্যমে পৃথিবীর অন্য সব দেশ ভ্রমন করা যায়। তাই পাসপোর্ট বিদেশ ভ্রমনের প্রথম সঙ্গী হিসেবে বিবেচিত হয়। বিশ্বের একেক দেশের পাসপোর্ট এর পাওয়ায় একেক রকম। কারন পাসপোর্ট এর Rank হিসাব করা হয় আন্তর্জাতিক ভাবে। সহজভাবে বলতে গেলে যে দেশের পাসপোর্ট এর অবস্থান যত উপরে সে দেশের নাগরিক  ততো বেশি দেশ ভ্রমন করতে পারে কোনো রকম ঝামেলা ছাড়াই।

কত দিন মেয়াদ থাকতে পাসপোর্ট রিনিউ করা উচিত

পাসপোর্ট একটি জরুরি প্রয়োজনীয় মাধ্যম বিদেশ ভ্রমনে। জরুরী কোনো কাজে দেশের বাহিরে যাবেন কিন্ত আপনার পাসপোর্ট এর মেয়াদ বাকি আছ আর মাত্র কিছু দিন এ সময় কি করবেন তা অধিকাংশ মানুষই জানেন না।

এধরনের সমস্যা প্রায় অনেকে সম্মুখীন হয়ে পড়েন।তাই পাসপোর্ট এর মেয়াদ ৬ মাস থাকতে পাসপোর্ট এর জন্য রিনিউ আবেদন করা ভালো। তবে এটি বাধ্যতামূলক কিছু নয়। চাইলে পাসপোর্ট এর মেয়াদ ১মাস বা কিছু দিন থাকতে ও পাসপোর্ট রিনিউ আবেদন করতে পারেন। এটি নির্ভর করে পাসপোর্ট ধারণ কারী ব্যাক্তির উপর।

তবে বিদেশ ভ্রমন করতে গেলে পাসপোর্ট রিনিউ করা বা মেয়াদ বাড়ানো বাধ্যতামূলক। ২০২১ সালের ৩০ শে মে এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে যেসব কর্মীদের পাসপোর্ট এর মেয়াদ ৬ মাসের কম রয়েছে তাদের পাসপোর্ট দ্রুততম সময়ের মধ্যে রিনিউ করতে বলা হয়েছে। কিংবা নতুন পাসপোর্ট পাওয়ার জন্য আবেদন করতে বলেছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

অনলাইনে পাসপোর্ট রিনিউ আবেদন করার নিয়ম

বর্তমান সময়ে দেশের সব জেলা পাসপোর্ট অফিসে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম চালু রয়েছে। তাই এমআরপি  পাসপোর্ট পাল্টে আপনাকে ই-পাসপোর্ট নিতে হবে।
এ বিষয়ে অনলাইনে বাংলাদেশি পাসপোর্ট রিনিউ করতে নিজে ফরম পূরণ করতে পারেন।

তবে ই-পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করতে জাতীয় পরিচয়পত্রের দেওয়া তথ্যের সঠিকভাবে 
মিলিয়ে ই-পাসপোর্টের জন্য আবেদন ফরম পূরণ করুন।


পাসপোর্ট রিনিউ করার নতুন নিয়ম ২০২৩
পাসপোর্ট রিনিউ করুন নতুন নিয়মে ২০২৩


অনলাইন পাসপোর্ট রিনিউ করতে একটি নতুন ই- পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করুন।এ বিষয়ে শুধু আইডি ডকুমেন্টস অপশন থেকে আগের এমআরপি পাসপোর্ট অপশনটি ক্লিক করে বিস্তারিত তথ্য সঠিকভাবে দিন।

আপনি কেন নতুন পাসপোর্টের জন্য আবেদন করেছেন, সে বিষয়ে কিছু তথ্য জানতে চাইতে পারে যেমনঃ - মেয়াদ ফুরিয়ে যাওযা, হারিয়ে বা চুরি হয়ে যাওযা , তথ্য পরিবর্তনের জন্য, পাসপোর্ট নষ্ট বা ছিড়ে যাওয়া কিংবা অন্যান্য কারনগুলোর মধ্যে থেকে আপনি এক্সপায়ার্ড বা মেয়াদ ফুরিয়ে গেছে - এই অপশনটি।


এর পর আগের পাসপোর্ট থেকে পাসপোর্ট প্রদানের তারিখ ও মেয়াদোত্তীর্ণ তারিখ লিখুন। এরপর বাম দিকের ধাপগুলো  স্বাভাবিক ই-পাসপোর্ট আবেদনের এর মতোই সম্পন্ন করে আবেদনটি সাবমিট করুন।
অনলাইনে পাসপোর্ট রিনিউ করার আবেদন করার পর আবেদনের কপি (A4) এ -ফোর সাইজের কাগজের উভয় পৃষ্ঠায় প্রিন্ট করবেন।এরপর পাসপোর্ট রিনিউ ফি পরিশোধ করুন তারপর প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রের ফটোকপি সংযুক্ত করে নিন।

পাসপোর্ট রি-ইস্যুর ক্ষেত্রে মূল পাসপোর্ট দেখাতে হবে। আর হারানো পাসপোর্ট এর ক্ষেত্রে মূল জিডির কপি দেখাতে হবে।

পাসপোর্ট রিনিউ করতে যেসব কাগজ লাগবে.!

দালাল ছাড়া পাসপোর্ট রিনিউ করুন নতুন নিয়মে
দালাল ছাড়া পাসপোর্ট রিনিউ করুন নতুন নিয়মে 


1. আবেদনপত্রের প্রিন্ট কপি,
2. সনাক্তকরণ ডকুমেন্টের প্রিন্ট কপি,
3. (জাতীয় পরিচয় পত্র বা অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদ) মানিঅর্ডার বা ব্যাংক সার্টিফাইড চেক,
4. আগের পাসপোর্ট ও ডাটা পেজের প্রিন্ট কপি,
5. সরকারি চাকরিজীবী দের ক্ষেত্রে জিও বা এনওসি এবং রেজিষ্ট্রেশন ফরম বা আবেদনপত্রের প্রিন্ট কপি।

পাসপোর্ট রিনিউ ফি কত..?

২০২৩ সালের তথ্য অনুসারে, পাসপোর্ট রিনিউ ফি নতুন পাসপোর্টের মতোই।এক্ষেত্রে ৫ বছরমেয়াদী ৪৮ পৃষ্ঠার পাসপোর্ট ফি ৪ হাজার ২৫ টাকা। আর ৬৪ পৃষ্ঠার পাসপোর্ট ফি ৬ হাজার ৩২৫ টাকা। এবং ১০ বছরমেয়াদী ৪৮ পৃষ্ঠার পাসপোর্ট ফি ৫ হাজার ৭৫০ টাকা ও ৬৪ পৃষ্ঠার পাসপোর্ট ফি ৮ হাজার ৫০ টাকা। 

পাসপোর্ট রিনিউ আবেদন করতে ভিজিট করুন :


Related Keyword :
পাসপোর্ট রিনিউ করার নতুন নিয়ম।
পাসপোর্ট রিনিউ করতে কি কি লাগে..?
পাসপোর্ট দালাল ছাড়া রিনিউ করুন।
পাসপোর্ট সহজে রিনিউ করুন অনলাইনে। 
অনলাইনে পাসপোর্ট রিনিউ আবেদন করুন।
বাংলাদেশি পাসপোর্ট রিনিউ করুন অনলাইনে। 


Previous Post Next Post